ঢাকা, ২০ জুন ২০২১, রবিবার

শিশুর স্মৃতিশক্তি বাড়াতে করণীয়

Facebook
WhatsApp
Twitter
Google+
Pinterest
খাবার

অনলাইনে ক্লাস করা, বন্ধু-বান্ধব ও সহপাঠিদের সাথে মিশতে না পারা এবং গৃহবন্দি জীবনের প্রভাব পড়ছে শিশুদের পড়াশোনা এবং মনের উপর। স্মৃতিশক্তিও হ্রাস পাচ্ছে অনেকের। সব শিশুর স্মৃতিশক্তি সমান না। যাদের স্মৃতিশক্তি দুর্বল, তাদের সেটি প্রখর করারও কিছু কৌশল আছে।

শিশুদের নিয়ে অভিভাবকদের মূল অভিযোগ– তারা পড়ালেখায় অমনোযোগী। কোনো কোনো মা-বাবার আক্ষেপ– সন্তান পড়া মনে রাখতে পারে না। করোনা ভাইরাসের কারণে প্রায় ১ বছরেরও বেশি সময় স্কুল কলেজ বন্ধ রয়েছে। ফলে নিয়মিত ক্লাস করা ও পড়ার অভ্যাস বদলে গেছে অনেকেরই।

অনলাইনে ক্লাস করা, বন্ধু-বান্ধব ও সহপাঠিদের সাথে মিশতে না পারা এবং গৃহবন্দি জীবনের প্রভাব পড়ছে শিশুদের পড়াশোনা এবং মনের উপর। স্মৃতিশক্তিও হ্রাস পাচ্ছে অনেকের। সব শিশুর স্মৃতিশক্তি সমান না। যাদের স্মৃতিশক্তি দুর্বল, তাদের সেটি প্রখর করারও কিছু কৌশল আছে। শিশুদের স্মৃতিশক্তি বাড়ানোর করণীয় সম্পর্কে-

১. শিশুকে প্রশ্ন করতে শেখান। যেন আপনার শিশুর মধ্যে কোনো কিছু জানার আগ্রহ তৈরি হয়। যত প্রশ্ন করবে, ততই বিষয়টি গভীরভাবে উপলব্ধি করবে সে। ফলে শিশুর স্মৃতিশক্তি শক্তিশালী হয়ে উঠবে।

২. শিশু যা শিখছে, সেগুলো দিয়ে তাকে ছড়া, গান তৈরি করতে শেখান। মানুষের মস্তিষ্ক মিউজিক ও প্যাটার্ন মনে রাখতে পারে দ্রুত। তাই মিউজিক বা ছড়া শিশুকে কিছু শেখালে সে তাড়াতাড়ি সব কিছু মনে করতে পারবে।

৩. শিশুর স্মৃতিশক্তি বাড়াতে লাইব্রেরি ও মিউজিয়ামে নিয়ে যান। তাকে এক জায়গায় বসিয়ে পড়াবেন না, বরং ঘুরতে ঘুরতে শেখান। লাইব্রেরিতে নিয়ে গিয়ে বই দেখাতে পারেন। মিউজিয়াম বা আর্ট গ্যালারিতেও নিয়ে যান।

৪. বিভিন্ন বিষয়ে শিশুর সঙ্গে আলোচনা করতে হবে। তারা কি ভাবছে জানতে চান। এভাবে তাদের চিন্তাধারার যেমন উন্নতি হবে, তেমন স্মৃতিশক্তিও বাড়বে।

৫. শিশুকে কিছু শেখানোর সময় ছবির ব্যবহার করুন। তা হলে শিশুর মনে রাখতে সুবিধা হবে।

৬. বাবা-মা, বন্ধুবান্ধব ও ভাইবোনের কাছ থেকে শিশু অনেক কিছু শেখে, সে যা শিখছে সেগুলো সম্পর্কে জানতে চান। আপনাকে বোঝানোর মাধ্যমে শিশুর স্মৃতিশক্তি বাড়বে।

৭. শরীরচর্চা শরীর ও মন দুই-ই ভালো রাখে। মস্তিষ্কের কার্যকারিতা বাড়াতে সহায়তা করে। রোজ শরীরচর্চা করুন।

তথ্যসূত্র : বোল্ডস্কাই।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *