ঢাকা, ২৭ জুলাই ২০২১, মঙ্গলবার

তরী

Facebook
WhatsApp
Twitter
Google+
Pinterest
লেখক

কখনও বিরহ-বেদনায় ছেঁয়ে যায়, কানায় কানায় জমা হয় দুঃখ। বাঁচার তরে আশাটুকুই রয়ে যায়, ভাবি সময়ে আসে যদি সুখ। তরী করতে লয় আসে ঢেউ তখন সাবধানে বাইতে হয় দাঁড়, এমন সময় থাকে না কেউ ঝঞ্ঝা সামলায় সর্বস্ব করে উজাড়।

তরী
কেয়ন ইমরান

একখান তরী দিয়ে বানায় খোদা
জগৎ মাঝারে ভাসায় দিল ধীরে,
তাই নিয়ে চলছি আমি সদা
ডুবছি ভাসছি জগতের অথৈ নীরে।

আশা বেঁধে বুকে চলছি আমি
ভাসিয়ে তরী আশার নীল সমুদ্রে,
কখনও বা হচ্ছে আদাড় যামি
প্রলয় ঝড় হানছে ধ্বংসরুপী রুদ্রে।

তরী চায় কূল, আমি মাঝি
বিশ্ব ব্রহ্মাণ্ডের, সব হারিয়ে আস্থাহীন।
একটু আশার বাণী লয়ে আজি
কে আসবে উদ্ধার করতে দীন।

এই তরী শুধুমাত্র তরী নয়,
এটা রণ তৈয়ারকারী সরঞ্জামাদিতে পূর্ণ।
এতে ভিন্ন রকমের মাল বোঝাই,
মুহূর্তে সব করতে পারে চূর্ণ-বিচূর্ণ।

কখনও বিরহ-বেদনায় ছেঁয়ে যায়,
কানায় কানায় জমা হয় দুঃখ।
বাঁচার তরে আশাটুকুই রয়ে যায়,
ভাবি সময়ে আসে যদি সুখ।

তরী করতে লয় আসে ঢেউ
তখন সাবধানে বাইতে হয় দাঁড়,
এমন সময় থাকে না কেউ
ঝঞ্ঝা সামলায় সর্বস্ব করে উজাড়।

ক্ষণতরে আমি করি যে নোঙর
চলার গতিবেগ বাড়াতে করি বিশ্রাম,
পেতে চায় শুভক্ষণে কোন বন্দর
আশার শক্তি মোর মাঝে উদ্যাম।

দিনমণি পিজে গিয়ে আসে রাত
নামে অমাবস্যার নিশির ঘোর অন্ধকার,
নবমীর চাঁদের অপেক্ষায় নিশাচরের মত
জেগে থাকি লক্ষ্য তীর পাওয়ার।

পাল উড়িয়ে পবনের বেগ সামলায়,
শক্ত করে তরীর পাল ধরি
সমুদ্রের জল নাহি পড়ে উছলায়;
অতি কষ্টে তাই রক্ষা করি।

তরীর সবকিছু বৈরী হয় যখন
আশা ভাঙে বিধিও হয় বাম,
তখনই মানবের হয় জীবন পতন;
মনমাঝিও দাঁড় ছেড়ে নেয় বিরাম।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *