পৌরসভার মেয়র প্রার্থী

চুপ করে বসে সাধারণ সম্পাদকের দায়িত্ব পালন করতে পারবেন না

এখনো আপনার প্রতি শ্রদ্ধা আছে, সম্মান আছে। এখনো আপনি আমাদের রাজনৈতিক আদর্শ। আমার রাজনৈতিক আদর্শ। এখনো কোম্পানীগঞ্জের নেতাকর্মীরা আপনাকে শ্রদ্ধা করে। শনিবারের পর থেকে আর এই শ্রদ্ধা থাকবে না।

নোয়াখালী : নবনির্বাচিত মেয়র আবদুল কাদের মির্জা বলেছেন, ওবায়দুল কাদের সাহেব, আপনি কী হতে চান? আপনি বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদকের দায়িত্বে আছেন। আপনার এলাকায় ত্যাগী কর্মীরা ঘরে শুতে পারেন না, গুলি খেতে হয়, তারা হাসপাতালের বেডে শুয়ে কাতরাচ্ছেন। আপনি সেখানে বসে কী করছেন? চুপ করে বসে সাধারণ সম্পাদকের দায়িত্ব পালন করতে পারবেন না।

২৫ জানুয়ারি সন্ধ্যায় বসুরহাটের রুপালি চত্বরে আয়োজিত এক প্রতিবাদ সমাবেশে তিনি এসব কথা বলেন। তিনি বলেন, আপনাকে ভালোবাসি।

এখনো আপনার প্রতি শ্রদ্ধা আছে, সম্মান আছে। এখনো আপনি আমাদের রাজনৈতিক আদর্শ। আমার রাজনৈতিক আদর্শ। এখনো কোম্পানীগঞ্জের নেতাকর্মীরা আপনাকে শ্রদ্ধা করে। শনিবারের পর থেকে আর এই শ্রদ্ধা থাকবে না।

ওবায়দুল কাদেরের উদ্দেশে মির্জা বলেন, শুনতে খারাপ লাগবে। কী করবেন আপনি? জেলে দেবেন, সেটার অভ্যাস আমাদের অনেক আগেই আছে। আপনার চেয়ে বেশি খেটেছি। মেরে ফেলবেন? কবরের জায়গা দেখিয়ে দিয়েছি। আপনার পাশ দিয়ে দেখিয়ে দিয়েছি। আপনি বলছেন আমাকে এখান দিয়ে দিয়ো, আমি আপনার পাশে দিয়ে দেখিয়ে দিয়েছি।

আপনাকে ভালোবাসি, এখনো আপনি আমার রাজনৈতিক আদর্শ। এখনো কোম্পানীগঞ্জের নেতা–কর্মীরা আপনাকে শ্রদ্ধা করে। শনিবারের পর থেকে আর এই শ্রদ্ধা থাকবে না। স্পষ্ট ভাষায় বললাম।

কারণ আপনি একটা দুশ্চরিত্র, মাদক সম্রাটকে আশ্রয়-প্রশ্রয় দিচ্ছেন। কেউ না থাকলেও আমি একা রাস্তায় থাকব, প্রয়োজনে জীবন দিয়ে দেব। এদের পতন হওয়া পর্যন্ত আমার আন্দোলন চলবে।

Share on facebook
Share on twitter
Share on google
Share on whatsapp
Share on email
Share on facebook

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *