ঢাকা, ২৭ জুলাই ২০২১, মঙ্গলবার

কাল দেখা যাবে স্ট্রবেরি মুন

Facebook
WhatsApp
Twitter
Google+
Pinterest
চাঁদ

প্রায় মাসখানেক আগে একটি সুপার মুন দেখেছিলো বিশ্ববাসী। সেটি ছিল ব্লাডমুন বা রক্তচন্দ্র। সেদিনই হয়েছিলো বছরের প্রথম চন্দ্রগ্রহণ। তার কিছুদিন পর হয় সূর্যগ্রহণ। এবার আরও একটি ঘটনার সাক্ষী হতে চলছে সবাই। বৃহস্পতিবার পৃথিবীবাসী সাক্ষী হবে বছরের শেষ সুপার মুনের। তবে ভারতীয় উপমহাদেশ থেকে স্ট্রবেরি মুন দেখতে না পাওয়ার সম্ভাবনাই বেশি।

আগামীকাল বৃহস্পতিবার ২৪ জুন এই বছরের শেষ সুপার মুন দেখা যাবে। এদিন চাঁদ লালচে বর্ণ ধারণ করবে। একে বলা হয় স্ট্রবেরি মুন। অন্যদিনের তুলনায় এদিন প্রায় ১২ শতাংশ বড় দেখাবে চাঁদ।

এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানিয়েছে ভারতীয় গোনমাধ্যম ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস। প্রায় মাসখানেক আগে একটি সুপার মুন দেখেছিলো বিশ্ববাসী। সেটি ছিল ব্লাডমুন বা রক্তচন্দ্র। সেদিনই হয়েছিলো বছরের প্রথম চন্দ্রগ্রহণ। তার কিছুদিন পর হয় সূর্যগ্রহণ। এবার আরও একটি ঘটনার সাক্ষী হতে চলছে সবাই।

বৃহস্পতিবার পৃথিবীবাসী সাক্ষী হবে বছরের শেষ সুপার মুনের। তবে ভারতীয় উপমহাদেশ থেকে স্ট্রবেরি মুন দেখতে না পাওয়ার সম্ভাবনাই বেশি বলে জানিয়েছেন বিজ্ঞানীরা। পৃথিবী থেকে চাঁদের দূরত্ব প্রায় ৪ লাখ ১০ হাজার কিলোমিটার। কিন্তু সুপারমুনের ক্ষেত্রে এই দূরত্ব কমে ৩ লাখ ৫৬ হাজার ৭০০ কিলোমিটারে নেমে আসে।

চাঁদ পৃথিবীর চারদিকে প্রদক্ষিণ করে। কক্ষের মাঝামাঝি চলে এলে চাঁদের দূরত্ব কমে যায়। তখন চাঁদ বড় দেখায়। পৃথিবীর ছায়ায় যখন চাঁদ পুরোপুরি ঢাকা পড়লে হয় চন্দ্রগ্রহণ। এই সময় সূর্যের সাত রঙের মধ্যে থাকা লাল রঙের তরঙ্গ পৃথিবীর বায়ুমণ্ডল ভেদ করে চাঁদে পৌঁছায়। তাই পূর্ণ গ্রহণের সময় লাল রঙের দেখায় চাঁদ। তবে এদিন গ্রহণ না থাকলেও লালচে চাঁদ দেখা যাবে।

মার্কিন আদিবাসী সম্প্রদায় কৃষিকাজ শুরুর এই মৌসুমে স্ট্রবেরি চাষ করে থাকে। সেই কারণে এই সময়ের সুপার মুনকে তারা স্ট্রবেরি মুন বলে আখ্যা দেয়। পৃথিবীর বিভিন্ন জায়গাতেই এই সুপারমুনের ভিন্ন ভিন্ন নাম রয়েছে। জানা যায়, বৃহস্পতিবার (২৪ জুন) রাত ১১টা ১৫ মিনিট থেকে দেখা যাবে স্ট্রবেরি মুন। চলবে রাত ২টা ৩৫ মিনিট পর্যন্ত।

সূত্র : ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *