ঢাকা, ২৬ জুলাই ২০২১, সোমবার

একটি বাড়ি আর গাছের দ্বীপ

Facebook
WhatsApp
Twitter
Google+
Pinterest

এক সময় দ্বঅপটি চক্রকেন্দ্র বা হাব দ্বীপ হিসেবে পরিচিত ছিল। তবে ১৯৫০ সালে যুক্তরাষ্ট্রের ধনী সাইজল্যান্ডস পরিবার দ্বীপটি কিনেছিল। পরে ওই পরিবার দ্বীপটিতে একটি কটেজ তৈরি করে এবং গাছ লাগায়। এতিই দ্বীপটি ভরে যায়। পরে অবশ্য ওই পরিবারই দ্বীপটির নাম রাখে ‘জাস্ট রুম এনাফ’।

বিশ্বে অনেক বড় বড় দ্বীপ আছে যেখানে মানুষের বসবাস রয়েছে। তবে পৃথিবীতে টেনিস কোর্টের মতো ছোট্ট এক দ্বীপেও মানুষ বসবাস করছে।

যুক্তরাষ্ট্রের নিউইয়র্কে আলেকজান্দ্রিয়া বে’তে অবস্থিত ক্ষুদ্র এ দ্বীপের নাম ‘জাস্ট রুম এনাফ’ বা একটি রুমই যথেষ্ট ।

ক্ষুদ্র অথচ সুন্দর এ দ্বীপটিতে একটি মাত্র বাড়ি আর একটি গাছ রয়েছে। এখানে আর কিছুই নেই। দ্বীপটির শুরু এবং শেষও এ বাড়ির সীমানাতেই।

আজব হলেও সত্যি যে ‘জাস্ট রুম এনাফ’ দ্বীপটি সেন্ট লরেন্স নদীর ১ হাজার ৮৬৪ টি দ্বীপের একটি মাত্র অংশ। এ নদীটি নিউইয়র্ককে অন্টারিও থেকে বিভক্ত করেছে।

দ্বীপটির আয়তন ৩ হাজার ৩০০ বর্গ ফুট। ইতিহাস থেকে জানা যায়, এক সময় দ্বঅপটি চক্রকেন্দ্র বা হাব দ্বীপ হিসেবে পরিচিত ছিল। তবে ১৯৫০ সালে যুক্তরাষ্ট্রের ধনী সাইজল্যান্ডস পরিবার দ্বীপটি কিনেছিল।

পরে ওই পরিবার দ্বীপটিতে একটি কটেজ তৈরি করে এবং গাছ লাগায়। এতিই দ্বীপটি ভরে যায়। পরে অবশ্য ওই পরিবারই দ্বীপটির নাম রাখে ‘জাস্ট রুম এনাফ’।

পরিবারটির উদ্দেশ্য ছিল, গ্রীষ্মের ছুটিতে এখানে সময় কাটানো। তবে দ্বীপটি নিয়ে পর্যটকদের আগ্রহ বাড়ায় ধীরে ধীরে এটি পর্যটন কেন্দ্রে পরিণত হয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *