লোগো

আমাদের নতুন পলিসি নিয়ে গুজব রটানো হচ্ছে : হোয়াটসঅ্যাপ 

Share on facebook
Share on twitter
Share on google
Share on whatsapp
Share on email
Share on facebook

নানা কারণে জায়ান্ট প্রতিষ্ঠানটি সমালোচনার বেড়াজালে জড়িয়ে গেছে। এর মধ্যে আবার নতুন করে এই গুজব ছড়িয়ে পড়ল।

সম্প্রতি ব্যবহারকারীদের আশ্বস্ত করে টুইটার বার্তা দিয়েছে হোয়াটসঅ্যাপ।

টুইট বার্তায় বলা হয়েছে, আমাদের নতুন পলিসি নিয়ে একটা গুজব রটছে। তবে আশ্বস্ত করছি, আপনাদের মেসেজ ১০০ শতাংশ সুরক্ষিত। অযথা আতঙ্কিত হবেন না।

হঠাৎ করে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে একটি বার্তা ছড়িয়ে পড়েছে। যেখানে বলা হচ্ছে, ৮ ফেব্রুয়ারির আগে হোয়াটসঅ্যাপের সঙ্গে সহমত না হলে মুছে যাবে অ্যাকাউন্ট। অগত্যা ভয় পেয়ে সব ইউজাররাই হোয়াটসঅ্যাপের প্রাইভেট পলিসির সঙ্গে সহমত হন।

তবে এ ধরনের বার্তার সঙ্গে হোয়াটসঅ্যাপের কোনো সম্পর্ক নেই বলছে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ।

গোপনীয়তা নীতির সমালোচনা করে ইতোমধ্যে বিশ্বের শীর্ষ ধনী এলন মাস্কসহ অনেকেই ফেসবুক-হোয়াটসঅ্যাপ ছেড়ে সিগন্যাল বা অন্য অ্যাপ ব্যবহারের পক্ষে মত দিয়েছেন।

নানা কারণে জায়ান্ট প্রতিষ্ঠানটি সমালোচনার বেড়াজালে জড়িয়ে গেছে। এর মধ্যে আবার নতুন করে এই গুজব ছড়িয়ে পড়ল।

অবশ্য প্রতিষ্ঠানটি নতুন গোপনীয়তা নীতির ব্যাখ্যা করেছে। সেখানে বলা হয়েছে,

(ক) হোয়াটসঅ্যাপের কর্মীরা কারও ব্যক্তিগত মেসেজ দেখতে পারে না বা হোয়াটসঅ্যাপ কলের কথাবার্তাও শুনতে পারে না। এমনকি ফেসবুকও নয়।

(খ) কল ও মেসেজের কোনও রেকর্ড রাখে না হোয়াটসঅ্যাপ।

(গ) গ্রাহকদের শেয়ার করা লোকেশন বা অবস্থান দেখতে পারে না হোয়াটসঅ্যাপ এবং ফেসবুক।

(ঘ) ফেসবুকে গ্রাহকদের কোনও ফোন নম্বর শেয়ার করে না হোয়াটসঅ্যাপ।

(ঙ) হোয়াটসঅ্যাপ গ্রুপের সব তথ্যই গোপন থাকে।
এছাড়া গ্রাহকরা যেকোনো ম্যাসেজ সরিয়ে নিতে ডিসঅ্যাপিয়ার অপশন বেছে নিতে পারবেন। এমনকি করতে পারবেন ডাউনলোডও।
সূত্র: জিনিউজ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *